কিভাবে ব্লগের জন্য ইউনিক আর্টিকেল লিখবেন? 2021 এর দারুন ট্রিক।

কিভাবে ব্লগের জন্য ইউনিক আর্টিকেল লিখবেন?

ইউনিক আর্টিকেল কারো লেখা বা মুখে শুনলেই আমাদের মধ্যে প্রশ্ন আসে এটি কিভাবে করা যায়, কিংবা কিভাবে হয়।

কি এই ইউনিক আর্টিকেল? একটি ব্লগের জন্য ইউনিক আর্টিকেল এর প্রয়োজনীয়তাই বা কত টুকু?
আজকের বিস্তারিত এই আলোচনার মাধ্যমেই সেই বিষয়ে আমরা বুঝার চেষ্টা করবো।

আসলে ইউনিক আর্টিকেল একটি ব্লগ বা সাইট এর জন্য অনেক বেশি জরুরী। কারন গুগলের প্রথম পৃষ্ঠায় আসতে হলে ইউনিক আর্টিকেল ছাড়া এটি একে বারেই অসম্ভব।

 

ইউনিক আর্টিকেল বিষয়েঃ

তো বন্ধুরা ইউনিক আর্টিকেল বলতে বুঝায় একটি আর্টিকেল এর নতুন রূপ,যাতে কোন প্রকারের প্লাগিরিজম থাকবে না এবং তার প্রতিটা লাইনও হবে ইউনিক।

কিভাবে ব্লগের জন্য ইউনিক আর্টিকেল লিখবেন?

 

অর্থাৎ আমরা যখন কোন রচনা লিখে থাকি সেটি কে আমরা আমাদের মতন করে সুন্দর করে গুছিয়ে লেখি, তবে তার জন্য আমাদেরকে একটি বিষয় বাছাই করে দেয়া হয়,এবং সেই ভাবেই আমরা আমাদের লেখাকে পূর্ন রূপ দিয়ে থাকি।

 

ইউনিক আর্টিকেল কেনো লিখবেন?

ইউনিক আর্টিকেল লেখার জন্য তেমন কোন স্পেসিফিক কারন নেই। তবে ইউনিক আর্টিকেল সব সময়ই ভিজিটর আকর্ষন করে থাকে।

কারন প্রতিটা ভিজিটর চায় নতুন কিছু জানার জন্য, তাই সব সাইটে যদি সেইম কন্টেন্ট থাকে তাহলে সেই সকল সাইটের ভিজিটর কেনই বা যাবে? এক সাইট থেকেই তো সব পাওয়া যায়।
তবে হ্যা ইউনিক আর্টিকেল শুধুমাত্র ভিজিটর এর আকর্ষন ছাড়াও গুগল এর কাছেও এর প্রধান্য অনেক বেশি।
যার জন্য গুগল এডসেন্স এপ্রোভাল পেতেও তাদের টার্মস এন্ড কন্ডিশন এ ইউনিক আর্টিকেল লেখার জন্য উপদেশ দিয়ে থাকে।
আর গুগল এডসের থেকে ইনকাম করতে হলে অবশ্যই ইউনিক আর্টিকেল সম্বলিত ওয়েবসাইট বা ব্লগ সাইট থাকতে হবে। কারন আপনি কপি কন্টেন্ট ব্যবহার করে মানুষ এর ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট করবেন সেটি গুগল কখনোই মানতে রাজি নয়।
তো এই বিষয়ে আপনি এতোক্ষনে বুঝেই গেছেন যে গুগল এডসেন্স পেতে হলেও ইউনিক আর্টিকেল লিখতে হবে আপনাকে।
এগুলি ছাড়াও গুগল র‍্যাংকিং এ আসতে হলেও আপনাকে ইউনিক আর্টিকেল লিখে সেটিকে উপযুক্ত ভাবে প্রকাশ করতে হবে।

 

ইউনিক আর্টিকেল টপিক বাছাইঃ

ইউনিক আর্টিকেল লেখার ক্ষেত্রে টপিক নির্বাচন অনেক বেশি গুরত্বপূর্ন। কারন আপনি যদি ডোমেইন বাছাই করে থাকেন ই-কমার্সের কিন্তু ব্লগ লিখে থাকেন ডগ-ফুড নিয়ে।

মূলত বিষয় টি ইউনিক হলেও আপনার নিশ অনুযায়ী যাচ্ছে না। তাই লেখার সময়ে আপনি খেয়াল করবেন যে আপনি ঠিক কি বিষয় নিয়ে ব্লগ লিখতেছেন।
ইউনিক আর্টিকেল এর ভাষাগত দিকটাও নজরে রাখবেন,এবং আর্টিকেল লেখার ক্ষেত্রে যথেষ্ট গুরত্বপূর্ন বিষয় গুলি কে প্রধান্য দিবেন যেন পাঠকের বুঝতে কোনপ্রকার সমস্যায় না পড়তে হয়।

 

ইউনিক আর্টিকেলের ক্ষেত্রে স্পীনার এর ব্যবহারঃ

আমরা অনেকেই আছি যারা মনে করি যদি কোন আর্টিকেল কে কপি করে সেটিকে রিরাইট কিংবা স্পীন করে লিখি তাহলে সেটি ইউনিক আর্টিকেল হয়ে যায়।

প্রকৃতপক্ষে এটি আপনার শব্দের পরিবর্তন করে এটিকে ইউনিক বানিয়ে দেয়। কিন্তু এটি কখনোই ইউনিক আর্টিকেল নয়।
গুগল খুব সহজেই এই ধরনের আর্টিকেল শনাক্ত করে নিতে পারে। কারন গুগল এর বট এবং এলগরিদম অনেক শক্তিশালী।
রি-রাইট টুল আপনাকে ১০০% ইউনিক প্রদান করলেও এটি ব্যবহার করে আপনি কখনো এডসেন্সও পাবেন না। তাই যদি আপনি ফ্রি স্পিনার টুল বা রিরাইট আর্টিকেল ব্যবহার করার কথা ভেবে থাকেন তাহলে
অবশ্যই আর্টিকেল টিকে ভালো ভাবে পড়ে নিবেন। কারন অনেক ক্ষেত্রে রি-রাইট করার কারনে অনেক পোষ্টের ভাষাগত দিকের পরিবর্তন হয়ে যায়।
তবে আপনার যদি একান্তই ইউনিক আর্টিকেল লেখার ক্ষমতা না থেকে থাকে তাহলে আমি আপনাকে একটি টুল সাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারি।
সাইটে যেতে – Speech To Text Demo
ইউনিক আর্টিকেল

ইউনিক আর্টিকেলঃ

এই সাইট টিকে ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই ইংলিশ আর্টিকেল পেয়ে যাবেন। তাই এর জন্য প্রথমে আপনাকে ইউটিউব থেকে একটি আপনার নিশ অনুযায়ী ইংলিশে পাব্লিশ করা ভিডিও লিংক কপি করে নিতে হবে।

এর পর সেই ভিডিও টির সাউন্ড মানে অডিও ক্লিপ ডাউনলোড করে নিন।
ডাউনলোড করা হয়ে গেলে উপরে দেয়া সাইট লিংক টিতে গিয়ে আপনার অডিও টিকে আপ্লোড করে দিতে হবে এবং প্লে বাটনে ক্লিক করে দিন।
দেখবেন ইংলিশের কন্টেন্ট গুলো একা একাই ইনপুট হতে শুরু করছে।
এভাবে আপনি চাইলে ৫০০ থেকে ৫০০০ শব্দের আর্টকেল লিখতে পারবেন যা একটি ব্লগের এডসেন্স পাবার ক্ষেত্রে অনেক বেশি কাজে আসে।
আর্টিকেল পাব্লিশ করার পূর্বে অবশ্যই এর লাইন এবং গ্রামাটিক্যাল বিষয় গুলি নজরে রাখবেন। কারন ফ্রি টুল সার্ভিস যে সময় ঠিকঠাক মতন শব্দ প্রোভাইড করে থাকে ঠিক এমন টা নয়।

 

পরিশেষে ইউনিক আর্টিকেল সম্পর্কেঃ

সব সময়ই চেষ্টা করুন অন্যকে কপি না করার। এটি আপনার জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ন। কারন আপনি অন্যের প্রতিভাবে কপি করে বেশি দূর আগাতে পারবেন না।

তো বন্ধুরা আজকের বিস্তারিৎ পোষ্ট এবং টুল সাইট টি আপনাকে কত টুকু ইউনিক আর্টিকেল প্রোভাইড করে সেই বিষয়ে আপনার মতামত জানাতে পারেন।
তাই নিচের কম্মেন্ট বক্স ব্যবহার করতে পারেন। আর বন্ধুদের সাথে ভাগ করে নিবেন এতে আপনি সহ আপনার বন্ধুও সুবিধাটি নিতে পারবে।

Leave a Comment